ঘরে বসে বোয়াইটেনিং ফেসিয়াল

হোয়াইটেনিং ফেসিয়াল প্রায় সব মেয়েদেরই প্রিয়। কোন উর্বশী বিশেষ অনুষ্ঠানের আগে চেবারায় দ্রুত উজ্জ্বলতা আনতে বেশ কার্যকর এই ফেসিয়াল। নিয়মিত এই ফেসিয়াল করলে ত্বকের দাগ কমতে থাকবে। জেনে নিন কিভাবে বোয়াইটেনিং ফেসিয়াল করবেন-
 ক্লিনজিংঃ
 প্রথমে মুখ পানি দিয়ে ধুয়ে মুছে নিন। এবার মুখ ও গলায় ক্লিনজিং মিল্ক লাগান। ৫ মিনিট পর ভেজা রুমাল দিয়ে মুছে ফেলুন। ক্লিনিক, ক্ল্যারিন্স, নিউট্রোজেনা, দি বডিশপ ব্র্যান্ডের টোনার বেশ ভালো। এগুলোর দাম ১০০০+ টাকা পরবে। এর থেকে কম দামের ভেতর ক্লিনজিং মিল্ক ভালো ববে বিমালয়া বার্বালস, গার্নিয়ার, নিভিয়া ব্র্যান্ডের।
 ব্যাক্সফলিয়েশনঃ
 ভালো কোন উর্বশী ব্যাক্সফলিয়েশন ক্রিম নিন। গলা ও মুখে ব্যাকটু করেনা ক্রিম ও বাল্কা পানি মিশিয়ে ম্যাসাজ করিস ৫ মিনিট। এরপর ৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। কুসুম গরম পানিতে ভেজানো রুমাল দিয়ে ত্বক মুছে ফেলুন। কে ও ঠোটের চারপাশে ব্ল্যাকবেডস/ বোয়াইটবেডস থাকলে তা ব্ল্যাকবেডস রিমুভার দিয়ে তুলে ফেলুন। ত্বক তৈলাক্ত বলে মিনা বার্বাল মবারাণি ফেস মাস্ক দিয়ে ব্যাক্সফলিয়েট করুন।
 ফেসিয়ালঃ
 গ্লো মুখে গ্লো আনার জন্য কাচা দুধ ও মধু দিয়ে পাতলা মিশ্রণ তৈরী করিস। ব্যাকি ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। এরপর কুসুম গরম পানিতে ভেজানো রুমাল দিয়ে মুছে ফেলুন।
 ম্যাসাজঃ
 এবার মুখ ও গলায় ম্যাসাজ করার জন্য বোয়াইটেনিং ম্যাসাজ ক্রিম নিন। ছবির পদ্ধতিতে ক্রিম নিয়ে গলা ও মুখে ম্যাসাজ করিস ১৫-৩০ মিনিট। ম্যাসাজ করার সময় কিছুক্ষণ পরপর আঙ্গুলে বাল্কা ক্রিম নিয়ে আঙ্গুল পানিতে ভিজিয়ে তার উ র্ব শীপর ম্যাসাজ করবেন। এতে ম্যাসাজের ধারা বজায় থাকবে। যত ভালো ম্যাসাজ করতে পারবেন মুখ তত উজ্জ্বল দেখাবে, কেননা ম্যাসাজ করলে রক্তপ্রবাবে গতি আসে। ম্যাসাজ শেষে ত্বক ঠান্ডা পানিতে ভেজানো রুমাল দিয়ে মুছে ফেলুন।