অ্যালোভেরা সবচাইতে প্রাচীন ও ভালো প্রাকৃতিক উপায় ব্রণের সমস্যা সমাধানে। অ্যালোভেরার অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি উপাদান ত্বকের সকল ধরনের ব্রন ও ইনফেকশনের সমস্যা দূর করতে সহায়তা করে। এটা ব্রন দূর করে না কিন্তু ব্রণের কারণগুলো দূর করতে সহায়তা করে।

মানুষের ত্বকের যত্নে সবথেকে ভাল হল প্রাকৃতিক উপাদান। যতই নামী দামী ক্রিম ব্যবহার করা হোক না কেন, তার ফলে যে উপকার পাওয়া যায় তার থেকে অনেক বেশি উপকার পাওয়া যায় প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করলে। প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারের সবথেকে বড় সুফল হল, এর কোন সাইড এফেক্ট বা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয় না। তাই নিজের ত্বককে সুন্দর করার জন্য প্রাকৃতিক উপাদান বেশি ব্যবহার করুন।

ত্বকের কোমলতা বজায় রাখার জন্য প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে বিশেষ যত্নের প্রয়োজন। রাতে ঘুমের এই দীর্ঘ সময়টার আগে ত্বকের বিশেষ যত্ন নিলে সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরে ত্বক দেখায় উজ্জ্বল ও মসৃণ। সেই সঙ্গে নিয়মিত রাতের বেলা ত্বকের যত্ন নিলে ত্বকে সহজে বয়সের ছাপ পড়ে না। সেই সঙ্গে ত্বকের রুক্ষতা কমে যায় এবং ত্বক হয় দাগমুক্ত।

রাতে ত্বকের যত্নের জন্য অনেকেই অনেক নামীদামী ব্র্যান্ডের নাইট ক্রিম ব্যবহার করে থাকেন। যারা ত্বকের জন্য প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করতে পছন্দ করেন তারা নামীদামী এসব নাইট ক্রিমের বদলে ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরার রস।

অ্যালোভেরা ত্বকের জন্য একটি উপকারী উপাদান। ত্বকের রোদে পোড়া ভাব দূর করতে, ত্বককে মসৃণ রাখতে, দাগ মুক্ত করতে এবং ত্বকে ব্রণের উপদ্রব কমাতে অ্যালোভেরার তুলনা নেই। বিশেষ করে যাদের ত্বক অত্যন্ত সংবেদনশীল তারা অন্যান্য কেমিকেল জাতীয় উপাদান ব্যবহার না করে ত্বকের যত্নে নাইট ক্রিম হিসেবে অ্যালোভেরা ব্যবহার করতে পারেন। নিয়মিত ব্যবহার করতে চাইলে বাড়িতেই লাগিয়ে নিতে পারেন অ্যালোভেরা গাছ। এতে প্রতিদিন তাজা পাতা ব্যবহার করতে পারবেন।

ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরার ব্যাবহার

ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরার ব্যাবহার

ত্বকের যত্নে অ্যালোভেরার ব্যাবহার- 

পদ্ধতিঃ 

১)প্রথমেই পরিষ্কার করে নিজের মুখ ধুয়ে নিন।এরপর একটি তাজা অ্যালোভেরা পাতার উপরের সবুজ অংশ ছুরি দিয়ে চেঁছে ফেলুন। এবার চামচ দিয়ে ধীরে ধীরে চেঁছে রস সংগ্রহ করে নিয়ে সেই রসটি একটি তুলো বা সাদা সুতির কাপড়ের সাহায্যে পুরো মুখে লাগিয়ে নিন। অ্যালোভেরার রস শুকিয়ে গেলে এভাবেই ঘুমিয়ে পড়তে পারবেন। সারারাত অ্যালোভেরার রস ত্বকের নানান সমস্যা দূর করতে ভূমিকা রাখবে। সকালে ঘুম থেকে উঠে মুখ ধুয়ে ফেললে দেখবেন ত্বক কোমল ও উজ্জ্বল হয়ে আছে। মুখে অ্যালোভেরা কখনোই সুতি জাতীয় কাপড় ছাড়া অন্য কিছুর সাহায্যে লাগাবেন না তাহলে অ্যালার্জী হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যায়।

২) ত্বকের কোন ধরনের ক্ষত হলেও নির্ভয়ে ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা।
আপনার ক্ষত ঠিক করার সঙ্গে ত্বককেও মসৃন রাখবে এই উপাদান। তবে শুধুমাত্র মুখের জন্য নয়, সমগ্র দেহেই নির্ভয়ে ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা।

৩) অ্যালোভেরা পাতার রস ছাড়াও বাজারে আজকাল শুধুমাত্র অ্যালোভেরার ক্রিম পাওয়া যায় কম দামে। রাত্রে শুতে যাওয়ার আগে পুরু করে সেই ক্রিম লাগিয়ে ঘুমোন। সকালে উঠে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন ভাল করে। তাহলে এক সপ্তাহের মধ্যে আপনার ত্বক কোমল উজ্জ্বল এবং সুন্দর হয়ে যাবে।

তবে, অ্যালোভেরা পাতার রস বা ক্রিম কোনটাই সকালে বেরোনোর আগে মূলত রোদে বেরোনোর আগে একদম ব্যবহার করবেন না।