উকুনের সমস্যার হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়

চুলের ও মাথার ত্বকের  বিরক্তিকর ও যন্ত্রণাদায়ক সমস্যা হচ্ছে উকুনের সমস্যা। উকুন যাদের মাথায় বাসা বেঁধেছে শুধু তারাই কেবল জানে এর যন্ত্রণা কতটুকু। উকুনের সমস্যা  যদি একবার শুরু হয় তাহলে মাথা থেকে দূর করা ভীষণ কষ্টকর হয়ে পড়ে । ভিবিন্ন ধরনের কারনে ক্যেমিকেল ব্যবহার করে উকুন দূর করা গেলে  ও চুল হয়ে পড়ে রুক্ষ্ম। এমনকি চুল পড়া শুরু করে ভয়াবহ ভাবে। কিন্তু তা যদি ঘরোয়া পদ্ধতি করা যায় তাহলে  উকুনের বংশকে নির্বংশ করা যাবে? এতে করে চুলের স্বাস্থ্যও ঠিক থাকবে। সাথে উকুনের সমস্যাও দূর হয়ে যাবে।  তাহলে জেনে  নিন কিভাবে উকুনের সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন তার কিছু কিছু  উপায়।

উকুনের সমস্যা দূর করার উপায় । Ukun er Somossar Theke mukhti

উকুনের সমস্যা দূর করার উপায় । Ukun er Somossar Theke mukhti

জলপাই তেলের(অলিভ অয়েল) মাধ্যমে-

উকুনের সমস্যায় রাতারাতি শেষ হবার না।এর জন্য আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে। অলিভ অয়েল উকুন তাড়ানোর জন্য বেশ কার্যকরী। অলিভ অয়েলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান মাথার ত্বককে উকুনের হাত থেকে মুক্ত করে। তার জন্য আপনাকে সারারাত চুলে অলিভ অয়েল লাগিয়ে রাখতে হবে। একটি কাপড় দিয়ে চুল মুড়িয়ে রাখুন। এতে মাথার ত্বকে একটি গরম ভাপ সৃষ্টি হবে। সকালে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এর ফলে  অনেকাংশে উকুন চলে যাবে।

হেয়ার ড্রায়ার ও হেয়ার স্ট্রেইটনারের ব্যবহার-

উকুন মাথার  গরম ভাপ সহ্য করতে পারে না। হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকোলে চুল গোড়া থেকে গরম হবে। এর ফলে চুলে উকুন থাকতে পারবে না। তখন অনায়েসে চুল আঁচড়ে উকুন দূর করতে পারবেন। হেয়ার স্ট্রেইটনারও চুল গরম করতে বেশ কার্যকরী। কিন্তু মনে রাখবেন হেয়ার ড্রায়ার ও হেয়ার স্ট্রেইটনার বেশি ব্যবহার করা যাবে না। এবং করলেও প্রথমে চুলের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে তবে করতে হবে।

হেয়ার স্টাইলার জেল ও পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করুন-

আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি যে হেয়ার স্টাইলার জেল ও পেট্রোলিয়াম জেলি চুলকে উকুন মুক্ত রাখতে বেশ কার্যকরী একটি উপাদান। এর জন্য চুলের গোড়ায় ভালো মতো হেয়ার স্টাইলার জেল ও পেট্রোলিয়াম জেলি মাখিয়ে রাখুন ৩০ মিনিটের মতো। এরপর ভালো করে শ্যাম্পু করে ফেলুন।এতে করে  উকুন দূর হবে দ্রুত।

উকুন মারতে মেয়োনেজ-

মেয়োনেজে অ্যান্টিফাঙ্গাল এলিমেন্ট থাকে যা মাথার ত্বকে পৌঁছে উকুন মরতে সহায়তা করে। পুরো চুলে ভালো করে মেয়োনেজ মেখে ঘুমোতে যান। মাথায় সাওয়ার ক্যাপ পড়তে আবশই ভুলবেন না । সকালে উঠে শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে ফেলুন।এতে করে  চুলের উকুন সমস্যা দূর করতে পারবেন।

উকুনের ডিম দূর করবে ভিনেগার-

উকুন মেরে ফেলা  সহজ হলেও উকুনের ডিম চুলে রয়ে যায় যা পরবর্তীতে আবার উকুন হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে তোলে। আর এই উকুনের ডিম দূর করতে আপনার রান্না ঘরের ভিনেগারকে কাজে লাগান। এক্সপার্টরা বলেন ভিনেগারের অ্যাসিটিক অ্যাসিড চুলের সাথে উকুনের ডিমের লেগে থাকার আঠা নষ্ট করে ফেলে । এতে ডিমগুলো চুল থেকে ঝরে পড়ে। সারারাত ভিনেগার মাখিয়ে রাখুন চুলে। সকালে শ্যাম্পু করুন চুল আঁচড়িয়ে।  এতে করে চুলে উকুনের ডিম দেখতে পাবেন না।