ত্বকের যত্নে চন্দনের ৫ ফেসপ্যাক

>>>চন্দনের উপকারীতা
>চন্দনের গুঁড়া ত্বকের কালো দাগ দূর করে থাকে।
>ব্রণের দাগ, সান টান দূর করে থাকে।
>এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করার সাথে সাথে ত্বকে একটি আলাদা আভা নিয়ে আসে।
>বলিরেখা দূর করে থাকে।
>এটি ত্বকে একটি শীতল ভাব এনে দেয়।
>চন্দনের গুঁড়া দিয়ে তৈরি কিছু ফেইস প্যাক, যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করার সাথে সাথে বলিরেখাও দূর করে থাকে।
১। চন্দন, মধু, ও হলুদের ফেস প্যাক
১/২ চা চামচ চন্দন গুঁড়া, ২ চা চামচ বেসন, এক চিমটি হলুদ, এবং কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। মুখ ও ঘাড়ে ভাল করে লাগান। ৩০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। এটি খুব দ্রুত ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে ত্বকে একটি গোলাপি আভা নিয়ে আসবে।
২। চন্দন, মুলতানি মাটির ফেস প্যাক
চন্দন গুঁড়া, মুলতানি মাটি এবং গোলাপ জল দিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এটি ঘাড় ও মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বকের বলিরেখা দূর করে দিবে। ত্বকের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে র‍্যাডিক্যল প্রতিরোধ করে বলিরেখা পড়া রোধ করে।
৩। চন্দন ও দুধের ফেস প্যাক
১ চা চামচ গুঁড়া দুধ, কয়েক ফোঁটা চন্দনের তেল বা চন্দন গুঁড়া, এবং গোলাপ জল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। ২০-১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। শুষ্ক ত্বকের জন্য এটি অনেক কার্যকরী প্যাক। এই প্যাক ত্বকের পিএইচ লেভেল ঠিক রাখে। ত্বকের রুক্ষতা দূর করার সাথে সাথে এই প্যাক ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে থাকে।
৪। চন্দন ও টমেটোর ফেস প্যাক
১/২ চা চামচ চন্দন গুঁড়া, ১/২ চা চামচ টমেটোর রস, ১/২ চা চামচ মুলতানি মাটি, কয়েক ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি মুখে, ঘাড়ে ভাল করে লাগান। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। তৈলাক্ত ত্বকে এটি অনেক বেশি কার্যকরী। ত্বকের অতিরিক্ত তেল ও ময়লা দূর করে থাকে। ত্বকের লোমকূপ পরিষ্কার করে হোয়াট হেডেস ব্ল্যাক হেডেস দূর করে থাকে।
৫। চন্দন, মধু ও গোলাপ জল ফেইস প্যাক
১ চাচামচ গোলাপ জল, ৩/৪ চা চামচ চন্দন গুঁড়া, মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। ২০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। দিনে দুইবার এই প্যাক ব্যবহার করুন। মধু ত্বকের ব্রণ প্রতিরোধ করে, চন্দন ও গোলাপ জল তেল দূর করে বলি রেখা পড়া রোধ করে থাকে।