প্রতিদিন নানান সমস্যায় আমাদের মনটা বিষণ্ণ হয়ে থাকে। অফিসের ঝামেলা, সাংসারিক ঝামেলা, নানান রকমের অশান্তিতে আমাদের জীবন হয়ে যায় অশান্তির। দিন শেষে তাই অস্থিরতা নিয়ে ঘুমাতে যেতে হয় কমবেশি সবারই। মানসিক এই চাপ কমানোর আছে কিছু অসাধারণ উপায়। জেনে নিন উপায়গুলো।

মানসিক চাপ কমাতে যা করবেন

মানসিক চাপ কমাতে যা করবেন

মানসিক চাপ কমাতে যা করবেন

রূপকথার গল্প পড়ুন বা সিনেমা দেখুন
মানসিক চাপ কমানোর জন্য ছোটবেলার মতো রূপকথার গল্প পড়তে শুরু করুন। ছোটবেলার সেই দিনগুলোর কথা মনে আছে যখন রূপকথার মতো সুন্দর মনে হতো জীবনটাকে? রূপকথার গল্প পড়লে বা সিনেমা দেখলে আপনার কাছে জীবনটাকে অনেকটাই সহজ মনে হবে। জীবনের নেতিবাচক দিকগুলোর চাইতে ইতিবাচক দিকগুলো বেশি চোখে পড়বে আপনার।

খেলনা দিয়ে খেলুন
মানসিক চাপ অতিরিক্ত বেড়ে গেলে খেলনা দিয়ে খেলুন। অথবা ভিডিও গেমস খেলতে পারেন। রিমোট কন্ট্রোল গাড়ি অথবা হেলিকপ্টার কিনুন। কিংবা বারবি পুতুলের ঘর কিনে ফেলতে পারেন। কিংবা কম্পিউটার বা প্লে স্টেশন কিনে খেলুন। অবসরে এসব শিশুতোষ খেলাধুলা করলে আপনার মনটা অনেকটাই হালকা হয়ে যাবে। আনন্দে ভরে যাবে আপনার মন।

রিলাক্সিং মিউজিক শুনুন
ইউটিউবে কিংবা সাউন্ড ক্লাউডে নানান রকমের রিলাক্সিং মিউজিক পাওয়া যায়। আপনার পছন্দমতো এরকম কোনো মিউজিক ছেড়ে রুমের লাইট নিভিয়ে মোমবাতি জ্বালিয়ে দিন। এতে আপনার মনটা অনেকটাই শিথিল হবে। মানসিক অস্থিরতা কমে যাবে অনেকটাই।

মন ভরে খাওয়া দাওয়া করুন
নিজেকে মন ভরে খাওয়ান। নিজের পছন্দের খাবারগুলো খান। প্রচন্ড মানসিক চাপে থাকলে ডায়েটিং করবেন না। ডায়েটিং না করে নিজের পছন্দের খাবারগুলো খেয়ে নিন। এতে আপনার মন ভালো থাকবে। সেই সঙ্গে মানসিক চাপ থেকেও মুক্তি পাবেন অনেকটাই।

নিজেকে উপহার দিন
নিজেকে মাঝে মাঝে উপহার দেয়ার অভ্যাস করুন। কেবল অন্যের খুশির কথা না ভেবে নিজের খুশিকেও প্রাধান্য নিন। আপনি যে জিনিসগুলো পছন্দ করেন সেগুলো নিজের জন্য কিনুন। নিজেকে নিজের পছন্দের স্থানে বেড়াতে নিয়ে যান। পছন্দের বই কিনে পড়ুন। সব মিলিয়ে নিজেই নিজের সবচাইতে ভালো বন্ধু হয়ে যান। এতে আপনার মানসিক চাপ অনেকটাই কমে যাবে। সেই সঙ্গে নিজের সঙ্গে নিজের কাটানো আনন্দময় সময়গুলো আপনার আত্মবিশ্বাস ও মানসিক শক্তি বাড়িয়ে দিবে অনেকখানি।