রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখার উপায়

রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখার উপায়

রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখার উপায়

রাগ এমন একটি আবেগ যা মানুষ খুব কমই নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন। রাগের মাথায় অনেক অকাজ করে ফেলতে দেখা যায় অনেককেই। হুট করে রেগে যাওয়া ব্যক্তির চাইতে অবশ্য ঠাণ্ডা মানুষের রাগের মাত্রা বেশি হয়। কিন্তু রাগ মূলত ক্ষতিকর একটি আবেগ যা নিয়ন্ত্রণে রাখাটাই বুদ্ধিমানের কাজ। কারণ রাগে হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে অনেকেই অনেক বাজে কাজ করে বসেন যার কারণে হয়তো পরবর্তীতে আফসোস করতে হয় নতুবা অনেক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। কিন্তু কীভাবে নিয়ে আসবেন নিজের রাগকে নিয়ন্ত্রণে? চলুন জেনে নেয়া যাক রাগ নিয়ন্ত্রণে আনার দারুণ কিছু টিপস।

১) সাথে সাথে গান শোনা শুরু করুন

গান সোনার বিষয়টি রাগ কমিয়ে আনার সবচাইতে ভালো একটি উপায়। মিউজিক এমন একটি জিনিস যা আমাদের মস্তিষ্ককে রিলাক্স করার ক্ষমতা রাখে এবং সেই সাথে মনোযোগ অন্যদিকে সরিয়ে নেয়ার কাজটি করে। যার ফলে রাগটি আপনাআপনিই কমে যেতে শুরু করে। পারলে গানের তালে একটু হাত পাও ছুঁড়ে নিতে পারেন। এতে আরও দ্রুত ভালো ফলাফল পাবেন।

২) অন্ধকার কোনো ঘরে চলে যান

ব্যাপারটি অনেক হাস্যকর মনে হলেও এটি বেশ ভালো একটি উপায় রাগ কমানোর। গবেষণায় দেখা যায় যখন কারো রাগ উঠতে থাকে তখন আশেপাশের সবকিছুর উপরে রাগ উঠে এবং ছুঁড়ে ও ভেঙে ফেলার প্রবণতা দেখা দেয়। এই সমস্যা থেকে নিজেকে সরিয়ে আনার এটিই সবচাইতে ভালো একটি পদ্ধতি। অন্ধকার ঘরে বসে নিজের রাগ নিয়ে একটি চিন্তা করার সময়ও পাওয়া যায়।

৩) নিজের অনুভূতি লিখুন

মানুষ যা মুখে বলে প্রকাশ করতে পারেন না বা মুখে বলে প্রকাশ করা উচিত নয় তা ভেতরে জমে থাকলে তা আরও বেশি ক্ষতিকর। তাই নিজের রাগের অনুভূতি প্রকাশ করে ফেলুন খাতায় লিখে। নিজের জন্য একটি ডায়েরির ব্যবস্থা করুন। এবং রাগ উঠলেই নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে দিন লিখে। এতে রাগ দ্রুত কমে।

৪) রাগ কমানোর ব্যায়াম

রাগ কমানোর দারুণ একটি শ্বাস প্রশ্বাসের ব্যায়াম রয়েছে। যখনই রাগ উঠবে এই ব্যায়ামটি করুন। খুব গভীরভাবে শ্বাস নিন। ধরে রাখুন ৫-৭ সেকেন্ড তারপর শ্বাস ছাড়ুন এবং আবার শ্বাস নিয়ে ধরে রাখুন। এভাবে ব্যায়ামটি করতে থাকুন যতক্ষণ না আপনি নিজে শান্ত হচ্ছেন। এটি বেশ ভালো একটি ব্যায়াম রাগ কমিয়ে আনার।