ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন মুখের অযাচিত কালচে দাগ

একটা ছোট্ট ফুসকুড়িকে টেনেটুনে, হাত দিয়ে নাড়িয়ে-চাড়িয়ে বিকট কোন ক্ষত বা দাগ বানিয়ে তোলা- এমনটা ঘটে আমাদের সবার সাথেই। বিশেষ করে সেই ফুসকুড়ি বা ব্রণ যদি হয় মুখে। খানিক পরপর নিজের অজান্তেই হাত চলে যায় সেখানে। কিন্তু একবার যদি কালো দাগ জন্ম নেয় আপনার মুখের সুন্দর ত্বকে, তাহলে সেটাকে কী করে সারানো যাবে? ঘুরে ফিরে প্রায় প্রত্যেকটি মানুষের, বিশেষ করে নারীদের মাথায় এ প্রশ্নটি চলে আসে বারবার। নানারকম পণ্য আর উপায় অবলম্বন করে সবাই চেষ্টা করেন নিজেদের জীবনের এই ছোট্ট সমস্যাটিকে দূর করতে। কিন্তু পরবর্তীতে দেখা যায় সেই ছোট্ট সমস্যাটিই আরো বড় হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে পরদিন যদি কোন অনুষ্ঠানে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকে তাহলে তো আর কথাই নেই! আর তাই আসুন জেনে নিই কী করে খুব তাড়াতাড়ি ঘরোয়া উপায়েই দূর করে ফেলা যাবে মুখের ওপরে পড়া অযাচিত কালচে দাগকে।
ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন মুখের অযাচিত কালচে দাগ

ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন মুখের অযাচিত কালচে দাগ

ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন মুখের অযাচিত কালচে দাগ

 সাধারণত মুখের ওপরে কালো দাগ হওয়ার পেছনে নীচের কারণ গুলোই বেশি ভূমিকা রাখে। আর সেগুলো হচ্ছে-
 ১. মানসিক চাপ
২. ত্বকের অযত্ন
৩. অতিরিক্ত প্রসাধনীর ব্যবহার
৪. ফুসফুসের সমস্যা
৫. ক্যান্সার
৬. বহুমূত্র রোগ ইত্যাদি ( মাই হেলথ টিপস )
যদি এগুলোই হয় আপনার মুখের ওপরে কালো দাগ হবার কারণ তাহলে নিজের জীবন থেকে ঝেটিয়ে বিদায় করুন এই ব্যাপারগুলোকে। তবে সেই সাথে কিছু ঘরোয়া উপায়ও অবলম্বন করতে পারেন আপনি ত্বকের কালো দাগ দূর করার জন্যে। আর সেগুলো হচ্ছে-
১. লেবুর রস
মুখের কালো দাগ দূর করার ক্ষেত্রে আপনার জন্যে সবচাইতে কার্যকরী ও সহজ উপায় হতে পারে লেবুর রস। খানিকটা তুলো নিয়ে তাতে লেবুর রস মিশিয়ে মুখের কালো স্থানটিতে ঘষুন। সেটাকে খানিক সময় শুকোবার সুযোগ দিয়ে তারপর ধুয়ে ফেলুন। ভিটামিন সি থাকবার কারণে কয়েকবার ব্যবহারেই একটু হলেও আপনার মুখের কালচে ভাব কমিয়ে দেবে লেবুর রস। তবে একেবারে পুরোপুরি সেরে ওঠার জন্যে অন্তত দুই সপ্তাহ এটি ব্যবহার করুন (টপটেন হোম রেমেডিস)।
২. পেঁপে
পেঁপের ভেতরে ত্বকের কালো দাগ, বয়সের ছাপ ও ক্লান্তি দূর করার ক্ষমতা রয়েছে। আর তাই একটি পেঁপে বেটে নিয়ে সেটাকে মুখের ওপরে ২০ মিনিটের জন্যে লাগিয়ে রাখুন। আপনার মুখের উজ্জ্বলতা তো বাড়বেই, সেই সাথে দূর হবে কালো দাগও। এক্ষেত্রে প্রতিদিন দুই বার করে এই কাজটি করে যেতে হবে আপনাকে ( মাই হেলথ টিপস )।
৩. অ্যালোভেরা
অ্যালোভেরাতে রয়েছে অ্যান্টি- অক্সিডেন্ট। আর তাই এটি খুব সহজেই আপনার ত্বককে সজীব ও কমবয়সী করে তুলতে সাহায্য করে। দূর করতে সাহায্য করে কালো দাগ । এক্ষেত্রে অ্যালোভেরার একটি ফেস মাস্ক তৈরি করে মুখে লাগাতে পারেন। খুব দ্রুত ফল পেয়ে যাবেন এতে করে আপনি।
৪. আলু, ডিম ও হলুদ
আলু চোখের কালো দাগ বা মুখের কালো ছোট দূর করতে সাহায্য করে এটি কম-বেশি সকলেই জানে। তবে কেবল আলুই নয়, এরপর হলুদ আর ডিমও ব্যবহার করুন মুখের কালো দাগের ওপর। ডিমের ভেতরে থাকা এ্যাসিড আপনার ত্বকের কালো দাগকে করে তুলবে হালকা আর হলুদ ত্বককে করে তুলবে উজ্জ্বল।